অনলাইনের দাওয়াতী কাজের বিষয়ে ইসলাম কী বলে!

0

আওয়ার টাইমস্ নিউজ।
দাওয়াতের ময়দান বিস্তৃত। শুধু লিখনী আর কথার মধ্যেই সীমাবদ্ধ নয়। বরং আমল ও জিহাদের মাধ্যমে ও দাওয়াতের কাজ করা যায়। বিজ্ঞানের চরম উৎকর্ষতার যুগে মানুষ এখন ইন্টারনেটমুখী।

সুতরাং যুগ ও বাস্তবতা স্বীকার করে যে, ইন্টারনেটকে ইসলামমুখী করতে হবে। যেনো লোকেরা দ্বীনমুখী হতে পারে। অফলাইনে যেমন দাওয়াতী কাজ করা যায় তেমনি অনলাইনে ও দাওয়াতী কার্যক্রম চালানো যায়।

তবে একজন আহলে দিল মিডিয়া সচেতন বুজুর্গের সাথে তাআল্লুক রেখে পরামর্শ করে এ কাজে পা বাড়ানো উচিত। নচেৎ হীতে বিপরীত হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

অনলাইনের মাধ্যমে কুরআন, সুন্নাহ, ইসলামের আকীদা – বিশ্বাস,বিধিমালা ও দৃষ্টি ভঙ্গির প্রচার -প্রসার করা যায়।
পাশাপাশি নাস্তিক মুরতাদদের ইসলামের উপর আরোপিত অভিযোগের জবাব ও দেওয়া যায়। এজন্য ইন্টারনেট ব্যবহার জায়েজ নয় ক্ষেত্রবিশেষ আবশ্যকও হয়ে যায়।

দাওয়াতের কাজের রয়েছে অনেক ফায়দা।

১.সবচেয়ে বড় উপকার হচ্ছে নিজের সংশোধন ও সচেতনতা। অন্য ভাইকে দাওয়াত দিলে কমপক্ষে নিজে গুনাহ থেকে চোখ লজ্জার কারণে বেচে থাকা যায়।

২. নববী দরদ প্রকাশ পায় উম্মতের প্রতি,স্বজাতির প্রতি।

৩. অন্য মুসলিম ভাইয়ের কল্যাণকামী হওয়া বুঝা যায়।

৪. নিজ ধর্মে অবিচলতা প্রকাশ পায়।

৫. কুরআনের ভাষায় দাওয়াতকে “সর্বোত্তম কথা ” আখ্যা দেওয়া হয়েছে।

৬. সুস্থ ও সুন্দর সমাজ বিনির্মানে দাওয়াতের বিকল্প নেই।

৭. দাওয়াত শেষ নবীর উম্মত শ্রেষ্ঠ হওয়ার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বৈশিষ্ট।

৮.দাঈ’কে আল্লাহ তায়ালা নিরাপদ ও সুস্থ রাখেন। তার জান- মাল, পরিবার- পরিজনকে হেফাজত করেন।
হাদিসে পাকে বর্ণিত হয়েছে,
عَنِ ابْنِ عَبَّاسٍ، قَالَ كُنْتُ خَلْفَ رَسُولِ اللَّهِ صلى الله عليه وسلم يَوْمًا فَقَالَ ‏ “‏ يَا غُلاَمُ إِنِّي أُعَلِّمُكَ كَلِمَاتٍ احْفَظِ اللَّهَ يَحْفَظْكَ احْفَظِ اللَّهَ تَجِدْهُ تُجَاهَكَ

ইবন আব্বাস রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, একদিন আমি নাবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর পিছনে (আরোহী) ছিলাম। তিনি বললেনঃ ওহে বালক, আমি তোমাকে কিছু কালেমা শিখিয়ে দিচ্ছি। আল্লাহর (বিধানসমূহের) হিফাযত করবে। তিনি তোমার হিফাযত করবেন; আল্লাহর সন্তুষ্টির লক্ষ্য রাখবে তাঁকে তোমার সামনে পাবে।
জামে তিরমিজি হাদিস নং ২৫১৮

৯. যে ব্যক্তি গুরুত্বের সাথে দাওয়াতের কাজ রব্বুল আলামিন তার দুনিয়া ও আখেরাতের জন্য যথেষ্ট হয়ে যায়।

১০. মানুষের মাঝে দাঈ’র জনপ্রিয়তা তৈরি হয়।

১১. রব্বুল আলামিন দাঈ’র সন্তুষ্ট হন।

১২. মানুষ দ্বীনের বুঝ পায়। দ্বীনে প্রবেশ করে।

১৩. দাওয়াত আযাব প্রতিহত করে।

১৪. দাওয়াত সওয়াব বয়ে আনে।

১৫. ফরযে কেফায়াহ দায়িত্ব আদায় হয়। ইত্যাদি।

দাওয়াতের রয়েছে অনেক ফজিলত।
দাওয়াতদাতা আমলকারীর সমপরিমাণ সওয়াব পাবে। হাদিসে পাকে বর্ণিত হয়েছে,
১.
রাসুল সা. এরশাদ করেন, সৎ কাজের পথপ্রদর্শক কর্তার ন্যায়।
জামে তিরমিজি হাদিস নং ২৬৭০

২.
আবূ হুরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ্ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেনঃ কেউ যদি কোন হেদায়াতের কাজের প্রতি আহবান করে তবে তার অনুসরণকারী সকলের ছওয়াবের সমান ছওয়াব তারও হবে। এতে তাদের ছওয়াবের মধ্যে কোনরূপ ঘাটতি হবে না। পক্ষান্তরে কোন ব্যক্তি যদি গুমরাহীর দিকে ডাকে তবে যারা তার অনুসরণ করবে তাদের সকলের গুনাহের সমান গুনাহ্ তারও হবে। এতে তাদের গুনাহ্ থেকে কিছু হ্রাস পাবে না।
জামে তিরমিজি হাদিস নং ২৬৭৪

প্রামাণ্য গ্রন্থাবলীঃ
১.
وَأَعِدُّوا لَهُم مَّا اسْتَطَعْتُم مِّن قُوَّةٍ وَمِن رِّبَاطِ الْخَيْلِ
তথা তোমরা তাদের (মুকাবিলার) জন্য যথাসাধ্য শক্তি ও অশ্ব -ছাউনি প্রস্তুত কর।
সুরা আনফাল ৬০

২.
عَنْ أَنَسٍ عَنِ النَّبِىِّ ﷺ قَالَ : «جَاهِدُوا الْمُشْرِكِينَ بِأَمْوَالِكُمْ وَأَنْفُسِكُمْ وَأَلْسِنَتِكُمْ»
আনাস (রাঃ) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেনঃ তোমরা মুশরিকদের সাথে তোমাদের জান, মাল ও জবান (তথা কথা বা লিখনীর) দ্বারা জিহাদ কর।
সুনানে নাসাঈ ৩০৯৬, সুনানে আবু দাউদ ২৫০৪, মুসনাদে আহমদ ১২২৪৬, সহীহুল জামে ৩০৯০, সুনানে দারিমী ২৪৭৫

৩.
ان مالايتم الواجب إلا به فهو واجب
আবশ্যক কাজের পরিপূরক বস্তু ও আবশ্যক।
ফিকহুন নাওয়াযিল ৩.২২৫

৪.
وسيلة المقصود تابعة للمقصود وكلاهما مقصود
উদ্দিষ্ট বস্তুর মাধ্যম তার অনুগামী এবং উভয়টি উদ্দিষ্ট।
ই’লামুল মুওয়াক্কীয়ীন ৩.১৭৫

৪.
আবু বকর রা. খালিদ বিন ওয়ালিদ রা. কে বলেছিলেন
حاربهم بمثل مايحاربو نك .السيف بالسيف والرمح بالمح
অর্থাৎ তুমি তাদের অনুরূপ অস্ত্র দিয়ে তাদের সাথে লড়াই কর। তরবারির মোকাবেলায় তরবারী ও তীরের মোকাবেলায় তীর।

লেখকঃ আব্দুল্লাহ ইদরীস- সহকারী শিক্ষা পরিচালক, জামিয়া দারুল উলুম মুহিউস সুন্নাহ আখাউড়া, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

একটি মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে