আজারবাইজান-আর্মেনিয়ার ৩য় যুদ্ধবিরতিও ভণ্ডুল আরো কিছু এলাকা উদ্ধারের দাবি আজারবাইজানের।

0

রিপোর্টার: সাইফুল ইসলাম।

নাগোর্নো-কারাবাখ নিয়ে আজারবাইজান বনাম আর্মেনিয়ার চলমান যুদ্ধে ‍রাশিয়ার মধ্যস্থতায় দু দফা যুদ্ধবিরতি ভেঙে যাওয়ার পর, এবার মার্কিন মধ্যস্থতায় তৃতীয় যুদ্ধবিরতিও ভণ্ডুল হয়েছে। আগের মতোই এটি লঙ্ঘনের পাল্টাপাল্টি অভিযোগ করেছে দেশ দুটি।

এবারে প্রথমে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও এবং পরে মার্কিন কূটনীতিবিদদের সঙ্গে বৈঠক করেন আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের প্রতিনিধিরা। এভাবে শুক্রবার থেকে ওয়াশিংটনে টানা আলোচনার পর, রোববার সন্ধ্যায় আজারবাইজান ও আর্মেনিয়া যুদ্ধবিরতিতে রাজি হয় এবং আমেরিকা, আজারবাইজান ও আর্মেনিয়া যৌথ বিবৃতি প্রকাশ করে।
তাতে বলা হয় – মানবিক কারণে সোমবার সকাল ৮টা থেকে যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করা হচ্ছে। কিন্তু সোমবার সকাল হতেই বাকু ও ইয়েরেভেন পাল্টাপাল্টি বোম্বিংয়ের অভিযোগ করেছে।

আজারবাইজানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আজ (সোমবার) সকালে সব দায় চাপিয়ে দিয়েছেন আর্মেনিয়ার ওপর। অন্যদিকে, আর্মেনিয়ার প্রশাসনও দায় চাপাচ্ছে আজারবাইজানের ওপর।

আজ আজারবাইজানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, টার্টার শহরের আগদাম অঞ্চলে ভারী বোম্বিং করেছে আর্মেনীয় বাহিনী। এতে বেসামরিক নাগরিকদের বসতির ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতি হয়। আর্মেনীয় বাহিনী আমাদের সেনাবাহিনীর ঘাঁটি ও বেসামরিক নাগরিকদের বসতি লক্ষ্য করে বোম্বিং করেছে।

অন্যদিকে, আর্মেনিয়ার দাবি – আজারি সেনাবাহিনী প্রথম যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করেছে।

এদিকে, গতরাতে (রোববার) আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলীয়েভ বলেছেন: কাবাদালী শহরটি উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া, জাঙ্গিলান, জিব্রাইল ও আরো কয়েকটি গ্রামও মুক্ত করা হয়েছে।

আজারবাইজানের সেনাবাহিনী কাবাদালী শহর পুনরুদ্ধার সংক্রান্ত একটি প্রামাণ্য ভিডিও প্রতিবেদন সম্প্রচার করেছে। সূত্র: রয়টার্স, ইয়েনি শাফাক, এএফপি ও পার্সটুডে।

একটি মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে