আটককৃত ১৫ আর্মেনীয় সেনাকে ছেড়ে দিয়েছে আজারবাইজান!

0

আওয়ার টাইমস্ নিউজ।
আজারবাইজানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, আঘদামে ৯৭ হাজার ট্যাঙ্ক-বিধ্বংসী ও মানুষ হত্যাকারী মাইন পুঁতে রাখা জায়গাগুলোর মানচিত্র হস্তান্তরের বিনিময়ে তারা সীমান্ত থেকে আটক আর্মেনীয় ১৫ সেনাকে জর্জিয়ার প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে আজারবাইজান-জর্জিয়া সীমান্ত দিয়ে হস্তান্তর করেছে। মাইনপূর্ণ ম্যাপ পাওয়ায় হাজার হাজার নাগরিকের স্বাস্থ্য ও জীবন রক্ষা পাবে। ল্যান্ডমাইনপূর্ণ অঞ্চলের ম্যাপ হস্তান্তরের মতো মানবীয় কর্মকাণ্ডে মধ্যস্থাতা করায় জর্জিয়ার প্রধানমন্ত্রী ইরাকলি গারিবাশভিলির নেতৃত্বাধীন সরকারকে ধন্যবাদ। এছাড়া,মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন ও ইউরোপীয় কাউন্সিলের প্রধান চার্লস মিশেলকেও ধন্যবাদ।

উল্লেখ্য, ৪৬০ বর্গমাইলের আঘদাম জেলা প্রায় তিন দশক আর্মেনিয়ার দখলে থাকার পর, গত বছরের সেপ্টেম্বরের যুদ্ধে অঞ্চলটিকে মুক্ত করে আজারবাইজান। গত বছর নাগোর্নো-কারাবাখ নিয়ে যুদ্ধ-পরবর্তী শান্তি চুক্তির পর, এ অঞ্চলে মাইন বিস্ফোরণে আজারবাইজানের অন্তত ২০ নাগরিক ও ৭ জন সেনা নিহত হয়েছে। সবশেষ এ বছর ৪ঠা জুন ল্যান্ড মাইন বিস্ফোরণে দু সাংবাদিকসহ আজারবাইজানের তিনজন নিহত হন।

সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নভুক্ত দেশ আর্মেনিয়া ও আজারবাইজান ২০২০ সালের সেপ্টেম্বরে নাগোর্নো-কারাবাখ নিয়ে টানা ৪৪ দিনের যুদ্ধে জড়িয়ে পড়ে। এরপর রাশিয়ার মধ্যস্থতায় দুদেশ যুদ্ধবিরতি চুক্তি করে। এ যুদ্ধে আজারবাইজান আর্মেনিয়ার কাছ থেকে বেশ কয়েকটি শহরসহ কারাবাখের প্রায় ৩০০ স্থাপনা ও গ্রাম উদ্ধার করে। বিশ্ব মিডিয়ায় এ যুদ্ধবিরতি চুক্তিকে আজারবাইজানের বিজয় এবং আর্মেনিয়ার পরাজয় হিসেবে উল্লেখ করা হয়।
সূত্র: আনাদোলু এজেন্সি ও দ্য গার্ডিয়ান।

একটি মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে