আফগানিস্তানে তুরস্ক নিয়ন্ত্রিত ১০টি স্কুল চালু

0

আওয়ার টাইমস্ নিউজ।
গত বৃহস্পতিবার (৪ নভেম্বর) তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত চাভুসগ্লু সংসদীয় বৈঠকে বলেছেন: কূটনীতির মাধ্যমে তুরস্ক আফগান নারীদের সহযোগিতার চেষ্টা করে যাচ্ছে।

একই সাথে অন্তর্বর্তী সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমির খান মোত্তাকিকে অনুরোধ জানিয়েছি – দেশ পরিচালনায় যেনো আফগানিস্তানের সব পক্ষের অংশগ্রহণ থাকে। আমাদের পরামর্শই শুধু যথেষ্ট নয়। এজন্যে আমরা ১৪ স্কুলের মাঝে ১০টি খুলে দিয়েছি – যা পরিচালনা করবে মারিফ ফাউন্ডেশন।

তুরস্ক আফগানিস্তানের একজন মেয়ে শিক্ষার্থীকে বৃত্তি দিয়েছে-যে আফগানিস্তানের বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষায় প্রথম হয়েছে। সেলগেই ইসমাইল তুরস্কের রাষ্ট্রীয় স্কলারশিপের আওতায় মেডিকেল স্কুলে প্রশিক্ষণ পাবে।

আমরা তালেবান সরকারের কাছ থেকে তার জন্যে পাসপোর্ট সংগ্রহ করেছি। তুরস্ক সম্প্রতি কাবুলে মানবিক সহায়তা কার্যক্রম পরিচালনা করছে। সম্প্রতি দক্ষিণ এশিয়ার দেশটিতে ৩৩ টন খাদ্য দেওয়া হয়েছে। আমাদের সহায়তা কার্যক্রম চলমান।

উল্লেখ্য, তুরস্কের অর্থায়নে আফগানিস্তানে ৮০টি স্কুল পরিচালিত হয়। এর মাঝে ১৪টি মেয়েদের জন্যে। তালেবান আফগানিস্তানের ক্ষমতাসীন হওয়ার পর, কাবুলে ন্যাটোর একমাত্র দেশ হিসেবে তুরস্কের দূতাবাস কার্যকর রয়েছে।

আফগানিস্তান বর্তমানে খাদ্য সংকট পার করছে। মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের পর, থেকে তালেবানশাসিত দেশটিতে পশ্চিমা দেশগুলো আর্থিক ও মানবিক সহায়তা বন্ধ করায় সংকট ঘনীভূত হয়েছে।

সূত্র: মিডল ইস্ট আই।

একটি মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে