ইমরান খানের সফরের কল্যাণে করোনায় মৃতদের দাহ বাতিল শ্রীলংকায়!

0

আওয়ার টাইমস্ নিউজ।
পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সফরের পরেই করোনায় মারা যাওয়া মানুষের লাশ বাধ্যতামূলক দাহের নীতি থেকে সরে এসেছে শ্রীলংকা। কেননা, জাতিসংঘের মানবাধিকার পরিষদের (ইউএনএইচআরসি) অধিবেশনে পাকিস্তানের সমর্থন চাচ্ছে দেশটি।

সংখ্যালঘুদের লক্ষ্যবস্তু বানিয়ে এ আদেশ দেয়া হয়েছিলো দাবি করে সমালোচকরা বলছেন: এতে ধর্মগুলোর প্রতি কোনো ধরনের শ্রদ্ধা দেখানো করা হয়নি।

ইসলামে মানুষের লাশ পুড়িয়ে ফেলা হারাম। কিন্তু শ্রীলংকার সেকুলার সরকারের যুক্তি ছিলো – লাশ মাটি দেয়ায় ভূগর্ভস্থ পানি দূষিত হয়ে যেতে পারে!

মুসলমানদের ওপর নিপীড়নসহ দক্ষিণ এশিয়ার দেশটিতে ক্রমাগত মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনায় নতুন একটি প্রস্তাবের কথা ভাবছে ইউএনএইচআরসি। মানবাধিকার লঙ্ঘনকারীদের বিচারের আওতায় নিয়ে আসতে এবং ২৬ বছরের গৃহযুদ্ধে হতাহতদের ন্যায়বিচারে শ্রীলংকার প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে। গৃহযুদ্ধে এক লাখের বেশি মানুষ নিহত হয়েছেন – যাদের অধিকাংশই সংখ্যালঘু তামিল জনগোষ্ঠীর। তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করে সদস্য দেশগুলোর সহায়তা চেয়েছে শ্রীলংকা।

লাশ পুড়িয়ে ফেলতে বাধ্য করার ঘটনায় ইউএনএইচআরসিসহ মানবাধিকার গোষ্ঠীগুলোর কঠোর সমালোচনার মুখে রয়েছে দেশটি। অভিযোগে বলা হচ্ছে, মুসলমান, ক্যাথলিক খৃষ্টান ও বৌদ্ধ কিছু সম্প্রদায়ের পরিবার এবং আক্রান্তদের ধর্মীয় অনুভূতিতে শ্রদ্ধা জানাতে ব্যর্থ হয়েছে শ্রীলংকা। সূত্র: বিবিসি।

একটি মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে