এবার আজারবাইজানে শান্তিরক্ষী মোতায়েন করবে তুরস্ক।

0

রিপোর্টার: সাইফুল ইসলাম।

নাগোর্নো-কারাবাখে শান্তি চুক্তির অংশ হিসেবে রাশিয়া শান্তিরক্ষী মোতায়েন করছে। ইতোমধ্যে আজারবাইজানে সেনা মোতায়েনের জন্যে আজ গতকাল সোমবার তুর্কি প্রেসিডেন্টের তরফ থেকে সংসদে মোসন জমা দেয়া হয়েছে – যাতে রয়েছে, রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোয়ান সরকার আজারবাইজানের আপার কারাবাখে এক বছরের জন্যে শান্তিরক্ষী মোতায়েনের চেষ্টা করছে।

মোসনে বলা হয়েছে, সেনা মোতায়েনে ঐ অঞ্চলের মানুষের কল্যাণ হবে এবং তারা লাভবান হবেন। এতে তুরস্কের জাতীয় স্বার্থও রয়েছে।

আজ (মঙ্গলবার) সংসদে মোসনটি নিয়ে ভোটাভুটি হবে।

উল্লেখ্য, নাগোর্নো-কারাবাখ নিয়ে ছ’ সপ্তাহের বেশি চলা যুদ্ধ বন্ধে ১০ই নভেম্বর আর্মেনিয়া, আজারবাইজান ও রাশিয়ার মাঝে চুক্তি হয়। চুক্তি মোতাবেক, নাগোর্নো-কারাবাখ ও আর্মেনিয়া-আজারবাইজান করিডোরে দায়িত্ব পালন করবে রুশ শান্তিরক্ষীরা। মোট ১৯৬০ জন রুশ শান্তিরক্ষী মোতায়েন করা হবে বিরোধীয় অঞ্চলটিতে। পাঁচ বছর পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করবেন তারা।

ঐ চুক্তির পর থেকেই ঐ অঞ্চলে তুর্কি সেনা মোতায়েনের দাবি জানিয়েছেন আজেরি প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলীয়েভ।

বুধবার আঙ্কারায় তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান দলীয় সভায় এক ঘোষণায় জানিয়েছেন, কারাবাখ শান্তি চুক্তিতে ঐ অঞ্চলে শান্তি কায়েমে তুর্কি-রুশ যৌথ সেনাবাহিনী পর্যবেক্ষণ করবে – এমন একটি সমঝোতা স্মারকে দু দেশ সই করেছে। এ সমঝোতা স্মারকটি আর্মেনিয়ার দখল থেকে মুক্ত হওয়া আজারবাইজানি অঞ্চলগুলোতে প্রতিষ্ঠিত হবে। সূত্র: ইয়েনি শাফাক ও অন্যান্য।

একটি মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে