তুরস্ককে রাশিয়ার হুঁশিয়ারি!

0

আওয়ার টাইমস্ নিউজ।
ইউক্রেনের সাথে সম্পর্ক বাড়ানোর উদ্যোগে তুরস্কের প্রতি হুঁশিয়ারি জানিয়েছে রাশিয়া। তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান গত মাসে ইউক্রেনের সীমান্ত সুরক্ষায় কিয়েভকে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। সীমান্তের ওপারে রুশ সেনাদের উপস্থিতির কারণে ইউক্রেন সামর্থ্য বৃদ্ধি করতে চায়। এরদোয়ান তখন সময় বলেছিলেন: বিদেশী পররাষ্ট্র ও প্রতিরক্ষামন্ত্রীদের নিয়ে একটি মঞ্চ গঠন করছে ইউক্রেন। এ মঞ্চে প্রতিরক্ষা শিল্পে সহযোগিতা নিয়ে আলোচনা হবে। তবে এটি কোনো তৃতীয় দেশের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নয়।

গতকাল সোমবার রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন: আমরা দৃঢ়ভাবে আমাদের তুর্কি সহকর্মীদের পরামর্শ দিচ্ছি – সতর্কভাবে পরিস্থিতি মূল্যায়ন এবং কিয়েভের সামরিক মনোভাবে রসদ যোগানো থামাতে। ক্রিমিয়াকে কেন্দ্র করে ইউক্রেনের আগ্রাসী পদক্ষেপকে উৎসাহ দেয়া রাশিয়ার আঞ্চলিক অখণ্ডতার সীমা লঙ্ঘন। আমরা আশা করি আঙ্কারা আমাদের বৈধ উদ্বেগের ভিত্তিতে নিজেদের সীমারেখা সমন্বয় করবে।

২০১৪ সালে রাশিয়ার হস্তক্ষেপে ইউক্রেন থেকে ক্রিমিয়ার বিচ্ছিন্ন হওয়ার সমালোচনা করেছে ন্যাটো সদস্য তুরস্ক। তখনও ইউক্রেনের আঞ্চলিক অখণ্ডতা রক্ষায় সমর্থনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন এরদোয়ান। ২০১৯ সালে কিয়েভের কাছে সামরিক ড্রোনও বিক্রি করে আঙ্কারা। একই সাথে সিরিয়া, লিবিয়া ও নাগোর্নো-কারাবাখ সংকটে রাশিয়ার সাথে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক তৈরি করেছে তুরস্ক; বিশেষ করে, জ্বালানি ও প্রতিরক্ষা খাতে। সূত্র: রয়টার্স।

একটি মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে