করোনার আসল তথ্য ফাঁস করলেন ট্রাম্পের সাবেক অর্থনৈতিক উপদেষ্টা টমাস

0

রিপোর্টার: মুহাম্মাদ উজ্জ্বল খান

চীনের উহান থেকে শুরু করোনা ভাইরাস বিষয়টি নিয়ে মোটামুটি নিশ্চিত পুরো পৃথিবী। কিন্তু এবার পাওয়া গেলো আরেক চাঞ্চল্যকর তথ্য। চীনে আঘাত হানার তিন মাস আগেই নভেল করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সম্পর্কে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে সতর্ক করা হয়েছিল বলে জানিয়েছেন মার্কিন সরকারের সাবেক অর্থনৈতিক উপদেষ্টা টমাস ফিলিপসন।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন-কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এ তথ্য জানিয়েছেন তিনি। অর্থনীতিবিদ টমাস ফিলিপসনের দাবি, ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে গোটা দুনিয়া যখন নভেল করোনা ভাইরাসের ভয়াবহতা সম্পর্কে বিন্দুমাত্র আঁচ করতে পারেনি, তখনই ডোনাল্ড ট্রাম্পকে সতর্ক করা হয়েছিল।
টমাস ফিলিপসন জানান, মহামারীর আশঙ্কার কথা উল্লেখ করে ৪১ পাতার একটি প্রতিবেদনও হোয়াইট হাউসে জমা দিয়েছিলেন মার্কিন শীর্ষ অর্থনীতিবিদরা। তাতে সতর্কতামূলক পদক্ষেপ নেয়ার কথাও বলা হয়েছিল। কিন্তু, ট্রাম্প প্রশাসন অর্থনীতিবিদদের প্রতিবেদনটিকে অবজ্ঞা করেছিল। ডোনাল্ড ট্রাম্প নিজেও গুরুত্ব দিতে চাননি।

সাক্ষাৎ‌কারে টমাস ফিলিপসন আরও বলেন, মহামারীতে আমেরিকায় পাঁচ লাখ মানুষ মারা যেতে পারে, ৪১ পাতার ওই প্রতিবেদনে সে আশঙ্কাও ব্যক্ত করা হয়েছিল। তারা এ-ও জানিয়েছিলেন যে, এ মহামারীর ধাক্কায় আমেরিকার অর্থনৈতিক ক্ষতির পরিমাণ দাঁড়াবে ৩ দশমিক ৭৯ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলার।
তিনি আরো বলেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট একা নন, ট্রাম্প প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তারাও সিইএ’র এ প্রতিবেদন সম্পর্কে অবহিত ছিলেন।
টমাস ফিলিপসন ট্রাম্প প্রশাসনের কাউন্সিল অব ইকোনমিক অ্যাডভাইজারসের (সিইএ) ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন হয়ে তিন বছর দায়িত্ব পালন করেছেন। গত জুনে তিনি তাঁর পদ থেকে ইস্তফা দিয়ে শিকাগো বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতার পেশায় ফিরে গেছেন।

একটি মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে