গাজা যুদ্ধের পর মোসাদ-প্রধানের চাকরি চলে গেলো!

0

আওয়ার টাইমস্ নিউজ।
ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু গত সোমবার মোসাদের কিছু কর্মকর্তাকে প্রধানমন্ত্রীর পুরস্কার বিতরণের অনুষ্ঠানে বলেছেন: ইয়োসি কোহেনকে (৫৯) বরখাস্ত করা হয়েছে এবং ডেভিড বার্নিয়াকে (৫৬) তার স্থলাভিষিক্ত করা হয়েছে।’ বার্নিয়া গত ২৫ বছর ধরে মোসাদে কাজ করছেন।

সম্প্রতি গাজায় ১২ দিনব্যাপী যুদ্ধ শেষে অস্ত্রবিরতি ঘোষিত হলে, ফিলিস্তিনী প্রতিরোধ আন্দোলনগুলো এ যুদ্ধে নিজেদের বিজয় ঘোষণা করে। হাজার হাজার ফিলিস্তিনী রাস্তায় নেমে বিজয়ের আনন্দ প্রকাশ করেন। অন্যদিকে, ইসরাইলও এ যুদ্ধে বিজয়ের দাবি করে; যদিও সেখানকার একজন নাগরিককেও রাস্তায় নেমে উল্লাস প্রকাশ করতে দেখা যায়নি।

পর্যবেক্ষকদের মতে, তেল আবিবের বিজয়ের দাবি নিছক ফাঁকা বুলি ছিলো। আর তার প্রমাণ – মোসাদ প্রধানকে সরিয়ে দেয়া। আসলে ফিলিস্তিনী যোদ্ধাদের সামরিক শক্তি সম্পর্কে সঠিক তথ্য দিতে ব্যর্থতার জন্যেই তাকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে।

এদিকে, ইসরাইলের অবসরপ্রাপ্ত জেনারেল আইজ্যাক ব্রিক ইসরাইলের একটি রেডিওকে দেয়া সাক্ষাৎকারে বলেছেন: ইসরাইল হামাসের রকেট ঠেকাতে ব্যর্থ হয়েছে। এবারের যুদ্ধে প্রমাণিত হয়েছে, তেল আবিব কয়েকটি ফ্রন্টে এক সাথে যুদ্ধ করতে গেলে মহা বিপর্যয়ের মুখে পড়বে। গাজায় ইসরাইল জঙ্গিবিমান দিয়ে বোমা হামলা করেছে। বিমান হামলা করে যুদ্ধে বিজয়ী হওয়া যাবে – এমন ধারণা পুরোপুরি ভুল। আমরা গাজা থেকে ক্ষেপণাস্ত্র আক্রমণ ঠেকাতে ব্যর্থ হয়েছি। এ অবস্থায় আমরা কীভাবে কয়েকটি ফ্রন্টে এক সাথে যুদ্ধ করতে পারবো? যখন হিজবুল্লাহও যুদ্ধে নামবে, তখন আমরা কীভাবে তা মোকাবেলা করবো? সূত্র: পার্সটুডে।

একটি মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে