নেদারল্যান্ডসের প্রথম হিজাবী মুসলমান সাংসদ নির্বাচিত!

0

আওয়ার টাইমস্ নিউজ।
রবিবার (২১ মার্চ) নেদারল্যান্ডসের মরোক্কান বংশোদ্ভূত জলবায়ু কর্মী কৌথার বাউচলখাটকে (২৭) সাংসদ ঘোষণা করায় প্রথমবারের মতো একজন হিজাবী মুসলিমা ডাচ সংসদ নির্বাচিত হলেন। নেদারল্যান্ডসের গ্রোয়িন লিংকস পার্টি থেকে তিনি সংসদে প্রতিনিধিত্ব করবেন। এক টুইটে তিনি জানান, সব বাধার পর আমরা বিজয়ী। সবার প্রতি ধন্যবাদ। সবার সাথে মিলে ঘৃণাকে জয় করে সাম্য ও ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠার আশা করি।

বাউচলখাটের বিরুদ্ধে ডানপন্থী দলের সদস্যরা দীর্ঘদিন ধরে ঘৃণা ও বৈষম্যমূলক প্রচারণা চালিয়ে আসছে। তদুপরি, তীব্র প্রচারণা ও নির্বাচনে নিজ দলের পরাজয় সত্ত্বেও নির্বাচনে জয়ী হওয়ায় অনেকের নজরে আসেন তিনি। ডিসেম্বরে এক খোলা চিঠিতে সই করে যুক্তরাজ্যের শতাধিক রাজনীতিবিদ, সমাজকর্মী, শিক্ষাবিদসহ বিভিন্ন পেশার ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান তার প্রতি সংহতি প্রকাশ করেন এবং বর্ণবাদ ও ইসলামবিদ্বেষের বিরুদ্ধে নিন্দা জানান।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের সূত্রে জানা যায়, বাউচলখাট নির্বাচনে ১৯ হাজারের বেশি ভোট পেয়ে বিজয়িনী হয়েছেন। জলবায়ু বিষয়ক সচেতনতা ও কর্মতৎপরতা স্থানীয়দের আস্থা ও শ্রদ্ধা অর্জন করেন তিনি।

ডাচ সংবাদমাধ্যম গ্লামাউরকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বাউচলখাট জানান, নেদারল্যান্ডসের অনেকে আমার ধর্মকে সন্ত্রাসবাদের সাথে নেতিবাচকভাবে সম্পৃক্ত করতে চান। তাছাড়া, আমার মতো মুসলিমাকে জলবায়ু বিষয়ক কর্মসূচিতে সম্পৃক্ত দেখে বেশ অবাক হোন তারা। আমি বিশ্বাস করি, মহান আল্লাহ আমাদেরকে পৃথিবী দান করেছেন। পৃথিবীকে বসবাসযোগ্য রাখা আমাদের সবার কর্তব্য।

ফিলিস্তিনের সমর্থনে সক্রিয়তার কারণে ডাচ সংবাদমাধ্যমে বাউচলখাটকে ইহুদিবিদ্বেষী বলে অভিযুক্ত করা হয়। আটরেচট ডাটা স্কুল ও ডি গ্রোইন আমস্টারডামের ম্যাগাজিনের গবেষণা মতে, ৩০%-এর বেশি টুইট বার্তায় তার বিরুদ্ধে প্রচারণা চালানো হয়েছে!

নেদারল্যান্ডসে ইসলাম দ্বিতীয় সংখ্যাগরিষ্ঠের ধর্ম। মোট জনসংখ্যার ৫% ইসলাম ধর্ম অনুসরণ করেন। সূত্র: দ্য নিউ আরব।

একটি মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে