বাংলাদেশের পাসপোর্টে “ইহুদিবাদী দেশ ইসরাইল ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা!

0

আওয়ার টাইমস্ নিউজ।
বাংলাদেশের নতুন পাসপোর্টে ইসরাইল ভ্রমণের ওপর নিষেধাজ্ঞা বাতিল করা হয়েছে মর্মে – ইসরাইলি সংবাদমাধ্যম জেরুজালেম পোস্ট খবর দেয়ার পর, এটাকে স্বাগত জানিয়ে গতকাল (শনিবার) রাতে এক টুইটে ইসরাইলের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের উপ-মহাপরিচালক গিলাড কোহেন টুইট করেছেন: ‘জবর খবর! বাংলাদেশ ইসরাইলের ওপর থেকে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করেছে। এটি একটি ইতিবাচক পদক্ষেপ। আমি বাংলাদেশ সরকারকে ইসরাইলের সাথে কূটনৈতিক সম্পর্ক গড়তে এগিয়ে যেতে আহ্বান জানাই যাতে আমাদের উভয় দেশের জনগণ উপকৃত ও সমৃদ্ধ হতে পারে।’ তিনি টুইটে এ সংক্রান্ত একটি নিউজের লিংক শেয়ার করে তাতে বাংলাদেশের পুরানো ও নতুন পাসপোর্টের পাশপাশি দুটি ছবি দেন। পুরানো পাসপোর্টে ইংরেজিতে লেখা ছিলো – THIS PASSPORT IS VALID FOR ALL COUNTRIES OF THE WORLD EXCEPT ISRAEL, অর্থাৎ ইসরাইল ছাড়া দুনিয়ার সব দেশের জন্যে বৈধ পাসপোর্ট। আর নতুন পাসপোর্টে লেখা – THIS PASSPORT IS VALID FOR ALL COUNTRIES OF THE WORLD, অর্থাৎ দুনিয়ার সব দেশের জন্যে বৈধ পাসপোর্ট। মানে, নতুন পাসপোর্টটিতে ‘EXCEPT ISRAEL (ইসরাইল ছাড়া)’ কথাটি নেই!

ইসরাইলের সাথে এখনো বাংলাদেশের আনুষ্ঠানিক কোনো কূটনৈতিক সম্পর্ক না থাকলেও জেরুজালেম পোস্ট আরো জানায়, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বাংলাদেশ-ভিত্তিক সাপ্তাহিক ব্লিটজকে নতুন পাসপোর্টের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন! ব্লিটজের বরাতে জেরুজালেম পোস্ট লিখেছে, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন: নতুন জারি করা পাসপোর্টের ফলে বাংলাদেশের নাগরিকদের বৈধভাবে ইসরাইল ভ্রমণের সম্ভাবনা উন্মোচিত হবে। অতীতে যেসব বাংলাদেশী নাগরিক ইসরাইল ভ্রমণ করেছে বা দেশটিতে ভ্রমণের চেষ্টা করেছে, তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগ আনা হয়েছে কিংবা ফের বাংলাদেশের মাটিতে পা রাখলে পরিণতি বরণের মতো হুমকি দেয়াও হয়েছে।

এক্ষেত্রে সাপ্তাহিক ব্লিটজ সম্পাদক সালাহ চৌধুরীর কথা উল্লেখ করেছে জেরুজালেম পোস্ট জানিয়েছে, ২০০৩ সালে ইসরাইলের রাজধানী তেল আবিবে লেখকদের এক সম্মেলনে অংশ নিতে চেয়েছিলেন সালাহ। পরে তাকে কারাগারে যেতে হয় এবং তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার মতো অভিযোগ আনা হয়।

এদিকে, গতকাল রোববার (২৩ মে) এক বিবৃতিতে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, বাংলাদেশের ইস্যু করা ই-পাসপোর্ট থেকে ইসরাইলে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা বাতিল করা হয়েছে উল্লেখ করে এ বিষয়টিকে স্বাগত জানিয়ে যে টুইট করা হয়েছে, তা বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নজরে এসেছে। তাতে বলা হয়েছে, নতুন ইস্যু করা ই-পাসপোর্টে ‘ইসরাইল ছাড়া সব দেশ’ এ পর্যবেক্ষণটি না থাকায় বিভ্রান্তি তৈরি হয়েছে বলে মনে হচ্ছে। বাংলাদেশ সরকারের দেয়া সব পাসপোর্টে এতোদিন লেখা থাকতো ‘দিস পাসপোর্ট ইজ ভ্যালিড ফর অল কান্ট্রিজ অব দ্য ওয়ার্ল্ড এক্সসেপ্ট ইসরাইল (ইসরাইল ছাড়া দুনিয়ার সব দেশের জন্যে বৈধ পাসপোর্ট)।’ কিন্তু নতুন ইস্যু করা ই-পাসপোর্টে এখন লেখা থাকছে ‘দিস পাসপোর্ট ইজ ভ্যালিড ফর অল কান্ট্রিজ অব দ্য ওয়ার্ল্ড’, অর্থাৎ এ পাসপোর্ট বিশ্বের সব দেশের ক্ষেত্রে বৈধ। এ পর্যবেক্ষণটি বাতিল করা হয়েছে বাংলাদেশের ই-পাসপোর্টের আন্তর্জাতিক মান বজায় রাখতে। তবে বাংলাদেশের পাসপোর্টধারীদের জন্যে ইসরাইলে ভ্রমণ নিষিদ্ধই থাকবে। মধ্যপ্রাচ্যের সাথে বাংলাদেশের বৈদেশিক নীতির কোন পরিবর্তন হবে না। বাংলাদেশ সরকার ইসরাইল ইস্যুতে তার অবস্থান থেকে সরে আসেনি এবং বাংলাদেশ তার দীর্ঘদিনের অবস্থানে কঠোর থাকবে। আল-আকসা মসজিদ কম্পাউন্ড ও গাজায় বেসামরিক লোকজনের উপর দখলদার ইসরাইলি বাহিনীর সাম্প্রতিক সহিংসতার নিন্দা জানিয়েছে বাংলাদেশ সরকার। জাতিসংঘের প্রস্তাবের আলোকে দু রাষ্ট্র সমাধানকে স্বীকৃতি জানানোর মৌলিক অবস্থানেই আছে বাংলাদেশ – যেখানে ১৯৬৭ সালের যুদ্ধ-পূর্ববর্তী সীমানা ঠিক রেখে দুটি রাষ্ট্র তৈরি এবং পূর্ব জেরুজালমকে ফিলিস্তিনের রাজধানী করার বিষয়টি রয়েছে।

উল্লেখ্য, মার্কিন সাবেক ট্রাম্প প্রশাসনের মধ্যস্থতায় গত বছর ইসরাইলের সাথে সম্পর্ক গড়েছে সেকুলার বা রাজতান্ত্রিক সরকার শাসিত বেশ কয়েকটি মুসলিম দেশ; যেমন- সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন, মরক্কো ও সুদান। সউদী আরবও ইসরাইলকে স্বীকৃতি দেবে বলে জানিয়েছিলেন ট্রাম্প। তবে গত মার্কিন নির্বাচনে ট্রাম্পের পরাজয়ের পর আর এর অগ্রগতি সম্পর্কে বেশি কিছু জানা যায়নি। সূত্র: বিবিসি বাংলা,অন্যান্য

একটি মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে