বাংলাদেশের পাসপোর্টে পরিবর্তন ইসরাইলের জন্যে ‍উপহার: ফিলিস্তিনী রাষ্ট্রদূত

0

আওয়ার টাইমস্ নিউজ।
ঢাকায় ফিলিস্তিনী রাষ্ট্রদূত ইউসুফ এস ওয়াই রামাদান গতকাল (সোমবার) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অ্যাম্বাসেডর অ্যাট লার্জ এম জিয়াউদ্দিনের সাথে বাংলাদেশের পাসপোর্টের পরিবর্তন নিয়ে ফোনে কথা বলেন। এরপর গণমাধ্যমকে তিনি জানান, তিনি অ্যাম্বাসেডর অ্যাট লার্জের কাছে নিজের অবস্থান তুলে ধরেছেন। এ সময় অ্যাম্বাসেডর অ্যাট লার্জ ফিলিস্তিনি রাষ্ট্রদূতকে আবারও আশ্বস্ত করেন যে, বাংলাদেশের মধ্যপ্রাচ্য নীতিতে কোনো পরিবর্তন আসেনি। ফিলিস্তিনী জনগণের প্রতি বাংলাদেশের সমর্থন অটুট আছে ও থাকবে।

ইউসুফ রামাদান বলেন: বাংলাদেশের সাথে ফিলিস্তিনের সম্পর্ক সেই একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের সময় থেকে। তবে পাসপোর্ট নিয়ে নতুন সিদ্ধান্তের খবর আমাকে অত্যন্ত মর্মাহত করেছে। বাংলাদেশের পাসপোর্টে পরিবর্তনের প্রসঙ্গটি এমন এক সময়ে এলো – যখন গাজা ও এর আশপাশের এলাকায় নৃশংসতা অব্যাহত রয়েছে। এটা হওয়া উচিত ছিলো না। কেননা, ইসরাইলি দখলদার বাহিনীর হাতে লেগে থাকা ফিলিস্তিনী শিশুদের রক্ত এখনো শুকায়নি। বাংলাদেশের পাসপোর্টের এ পরিবর্তন তো ইসরাইলের জন্যে উপহার। খুশি হয়েই তো ইসরাইলের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় টুইট করেছে। এ সিদ্ধান্তে ভুল বার্তা গেছে। বাংলাদেশ সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করবে বলে আশা করি। বাংলাদেশ একটি স্বাধীন ও সার্বভৌম রাষ্ট্র। চূড়ান্ত সিদ্ধান্তটা বাংলাদেশই নেবে। বাংলাদেশের পাসপোর্টের এ পরিবর্তনের পেছনে কী ছিলো, আমার জানা নেই। তবে অনুমান করি, গুটিকয় লোক এ কাজ করেছেন। পাসপোর্টের এ পরিবর্তন নিয়ে আমি এ দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খানের সাথে আলোচনা করতে চাই। সূত্র: পার্সটুডে।

একটি মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে