মুসলিমদের ধোঁকা দিতে ইসরাইল তাদের টুইট একাউন্টে কুরআনের আয়াত পোস্ট করলো!

0

আওয়ার টাইমস্ নিউজ।
মঙ্গলবার সকালে ইসরাইলের অফিসিয়াল আরবি টুইটার অ্যাকাউন্টের একটি টুইটে গাজায় চলমান বোম্বিংকে ন্যায্যতা দিতে সুরা ফীল তুলে ধরায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানাচ্ছেন মধ্যপ্রাচ্যের মুসলিমরা। ঐ টুইটে ইসরাইলি বিমান হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত একটি ভবন থেকে ধোঁয়ার কুণ্ডলীর ছবির উপরে সুরা ফীল লিখে প্রকাশ করা হয়েছে।

ফলো-আপ টুইটে বলা হয়, এটি হলো মিথ্যাবাদিতার বিরুদ্ধে ন্যায়ের পথে থাকা মানুষদের সমর্থনে ঈশ্বরের সহযোগিতার সামর্থ্যের একটি নমুনা। বিশেষ করে, যখন ইরানের হয়ে কাজ করা হামাস এ অঞ্চলে অস্থিতিশীলতা ছড়াতে চায়। আইডিএফ (ইসরাইলি সেনাবাহিনী) গাজায় হামাস সন্ত্রাসীদের লক্ষ্যবস্তু করেছে।

মিডলইস্ট আই মন্ত্যব্য করেছে, এর মধ্য দিয়ে কুরআনের আয়াতে মক্কার কাবাকে রক্ষা করা পাখীর ঝাঁক হিসেবে নিজেদের দাবি করেছে ইসরাইল। আর যুদ্ধের হাতী হিসেবে হামাসকে তুলে ধরেছে।

এ বিষয়ে মিডলইস্ট আই’র তরফ থেকে ঐ টুইটার অ্যাকাউন্টটির পরিচালক ইসরাইলি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কাছে টুইট দুটিতে কী বার্তা দেয়ার চেষ্টা করা হয়েছে জানতে চাইলে, তারা কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি।

এক টুইটার ব্যবহারকারী ব্যঙ্গ করে জানতে চেয়েছেন: আর আপনারা বুঝি ন্যায়পরায়ণ মানুষ?

অপর একজন প্রতিক্রিয়ায় লিখেছেন: ইসরাইলের আরবি টুইটার অ্যাকাউন্টে গাজায় বোম্বিং নিয়ে কুরআনের সুরা ব্যবহারের চেয়ে জঘন্য ও অমানবিক আর কিছু হতে পারে না। আমাদের পবিত্র কিতাবের আয়াত তোমাদের অসুস্থ ও প্যাঁচানো নান্দনিকতায় ব্যবহারের মতো কিছু না।

মার্কিন প্রকাশনা সংস্থা মন্ডোওয়েইসিস এক কথায় লিখেছে, এটি বিরক্তিকর।

পাকিস্তানী-মার্কিন ইসলামিক স্কলার ডঃ ইয়াসির কাজী বলেন: এটি কুরআন ও মানুষের পবিত্রতা নষ্টের মতো বিদ্রূপ। তবে এটিকে পুরো মুসলিম জাহান ইসরাইলের মশকরা হিসেবে মানতে রাজি নন। সূত্র: মিডল ইস্ট আই ও অন্যান্য।

একটি মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে