শ্রীলঙ্কায় ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম বিবিসির সাংবাদিকদের উপর হামলা!

0

আওয়ার টাইমস নিউজ ‌

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: শ্রীলঙ্কাতে বৃটিশ সংবাদ মাধ্যম বিবিসির সাংবাদিকদের ওপর হামলা চালোনোর অভিযোগ উঠেছে দেশটির নিরাপত্তা বাহিনীর বিরুদ্ধে। কলম্বো থেকে বিবিসি নিউজের সাংবাদিক আনবারসান ইথিরাজান জানিয়েছেন,’যখন আমরা শুনতে পাই যে লংকান সৈন্যরা মধ্যরাতের পরপরই কলম্বোতে সরকার-বিরোধী বিক্ষোভকারীদের ওপর অভিযান চালাবে, ঠিক তখনই আমরা পর্যবেক্ষণের জন্য শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্টের কার্যালয়ের ঠিক সামনে ঘটনাস্থলে গিয়ে উপস্থিত হই।

এরপর সাথে সাথেই আমরা দেখতে পাই যে, শত শত অস্ত্র নিয়ে দেশটির সেনাবাহিনী এবং দাঙ্গার পোশাক পরা পুলিশ কমান্ডোরা দুই দিক থেকে ছুটে আসছে। এবং ওই সময়ে তাদের মুখটি সম্পুর্ন ঢাকা ছিল।

ওই সময় সরকার বিরোধী আন্দোলনকর্মীরা সামরিক বাহিনীর উপস্থিতি নিয়ে আপত্তি জানালে নিরাপত্তা কর্মীরা তাদের ওপর প্রচণ্ড চড়াও হয়। তখন বাদ্য হয়েই আন্দোলনকারীদের পিছু হটতে থাকে। 

এরপর ঠিক কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই দেখা যায় সেনাবাহিনী একটি দল হঠাৎ চিৎকার শুরু করেছে, এবং ফুটপাতে স্থাপিত অস্থায়ী তাঁবু এবং অন্যান্য জিনিসপত্র ও বিভিন্ন মালামাল ভেঙে ফেলছে। সেনারা প্রেসিডেন্টের কার্যালয়ের ভেতরেও যায় যেখানে গত সপ্তাহে বিপুল সংখ্যক জনতা ঢুকে পড়েছিল।

এদিকে বিবিসির সাংবাদিক আনবারসান ইথিরাজান জানিয়েছে “আমরা যখন ওই এলাকা। থেকে ফিরে আসছিলাম, তখন বেসামরিক পোশাক পরা এক ব্যক্তিকে সেনাবাহিনীরা ঘিরে রেখেছিল। তখন তারা আমার সহকর্মীকে চিৎকার করে বলেছিল যে তার কাছে থাকা ভিডিওগুলো যেনো ডিলিট করে দেওয়া হয়। এরপর কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে লোকটি আমার সহকর্মীকে মারাত্মক ভাবে ঘুষি মেরে তার কাছ থেকে তার ফোনটি জোরপূর্বক নিয়ে যায়। ওই সময় আমি সেনাবাহিনীদের ত বুঝিয়েছে যে, আমরা সাংবাদিক এবং আমরা শুধু আমাদের পেশাগত দায়িত্ব পালন করছি। কিন্তু তারা আমাদের কোন কথাই শোনেনি। তারা কয়েকজন আবারো আমার সহকর্মীকে আক্রমণ করা শুরু করে। আমরা তখন এই হামলার তীব্র আপত্তি জানাই। এবং পরে আমরা তাদের ভিডিওগুলো ডিলেট করে দিলে তারা আমাদের ছেড়ে দেয়।

একটি মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে