ট্রলারডুবির ঘটনায় নিহতদের পরিবারে বিভিন্ন সংস্থার সহায়তা প্রদান।

0

স্টাপ রিপোর্টার: মোর্শেদ আলম।

নেত্রকোনার মদনে নৌকাডুবির ঘটনায় নিহত আলেম পরিবারদের মাঝে আর্থিক ও সামাজিক সহায়তা প্রদান করেছে স্থানীয় প্রশাসন সহ কয়েকটি সংস্থা।

গতকাল শুক্রবার জুমুআর নামাজের পর,মারকাযুস সুন্নাহ মাদ্রাসা প্রাঙ্গণে নৌকাডুবিতে নিহতদের মধ্যে ময়মনসিংহ সদরের চর সিরতা ইউনিয়নের ১৩টি পরিবারকে পাঁচ হাজার টাকা করে নগদ অর্থ সহায়তা দিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সেবা ভিত্তিক সংগঠন ‘সাদাকাহ ফাউন্ডেশন’।
এসময় সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আশরাফ হোসাইন, সিরতা ইউপি চেয়ারম্যান আবু সাইদসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলা প্রশাসন ময়মনসিংহ এর পক্ষ থেকে সদর উপজেলার সিরতা ইউনিয়নের বাসিন্দা মদনের উচিতপুরে নৌকাডুবিতে মারা যাওয়া ব্যক্তিদের পরিবারের হাতে সরকারি অনুদান হস্তান্তর করা হয়েছে এবং স্থানীয় সংসদ সদস্যের পক্ষ থেকেও দেওয়া হয়েছে বিশেষ অনুদান।

অন্যদিকে হাফেজ্জী হুজুর সেবা সংস্থাও গতকাল, সংগঠনের সভাপতি আবু ইউসুফ ফরহাদ, সহ-সভাপতি অধ্যাপক আমিরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক নওমুসলিম মোঃ রাজ সহ সংস্থাটির আরো কয়েকজন সদস্য ঢাকা থেকে মোমেনশাহীর কোনাপাড়ায় আসেন। তারা শহীদ হাফেজ মাহফুজুর রহমানের পরিবার ও নিহত অন্য পরিবারের সদস্যদের সাথে সাক্ষাৎ করেন এবং তাদেরকে কিছু আর্থিক সহায়তা প্রদান করেন। এবং শহীদ হাফেজ মাহফুজুর রহমানের পরিবার সহ আরো কয়েকটি পরিবারের চলার জন্য স্থায়ী উপার্জনের ব্যবস্থা করার আশ্বাস প্রদান করেন। এসময় তারা শহিদদের কবর জিয়ারত করেন এবং তাদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া করেন।

নিহত আলেম পরিবারের এতিম সন্তানদের লেখাপড়ার দায়িত্ব গ্রহণ করতেও আগ্রহ প্রকাশ করেছেন দেশের শীর্ষস্থানীয় কয়েকজন আলেম।

ট্রলারডুবির ঘটনায় নিহতদের এতিম সন্তানদের নিজেদের প্রতিষ্ঠানে পড়াশুনার সকল দায় দায়িত্ব নিবেন বলে জানিয়েছেন ঢাকা মিরপুরের আরজাবাদ মাদরাসার মুহতামিম ও বেফাকের সহ-সভাপতি মাওলানা বাহাউদ্দীন জাকারিয়া এবং জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের সহ-সভাপতি ও হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় যুগ্ম-মহাসচিব মাওলানা জুনাঈদ আল হাবিব।

একই সুরে সুর মিলিয়ে জামিয়া ফয়জুর রহমান রহ.এর শাইখুল হাদীস ও মুহতামিম আল্লমা আব্দুল হক বলেন ঢাকা যাওয়া কষ্টকর তাই বড় মসজিদে সব ফ্রী ব্যবস্থা করতেও আমরা প্রস্তুত আছি। আলোচনার এক পর্যায়ে আরো প্রতিশ্রুতি দেন জামিয়া মাহমুদিয়ার শায়খুল হাদীস মাওলানা নূর আহমাদ, তিনি বলেন শায়েখে যাত্রাবাড়ী বার বার ফোন দিয়ে এ ঘটনার খুঁজ খবর নিয়েছেন এবং সমবেদনা জানিয়েছেন, তাই আমরা বলতে চাই ঢাকা বা ময়মনসিংহে নয় বরং শায়েখের সাথে পরামর্শ করে পার্শ্ববর্তী প্রতিষ্ঠান চরখরিচাতেও আমরা সম্পুর্ণ ব্যবস্থা করতে প্রস্তুত আছি।

উল্লেখ্য, ৫ আগস্ট দুপুরে মদন উপজেলার উচিৎপুর সংলগ্ন গোবিন্দশ্রী এলাকায় ৪৮জন পর্যটক নিয়ে একটি নৌকা ডুবে যায়। এতে ৩০ জন সাঁতরে তীরে উঠতে পারলেও অন্যরা উঠতে পারেনি। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ১৭ জনের মরদেহ উদ্ধার করে,নিহতদের অধিকাংশই ময়মনসিংহ সদরের চর সিরতা ইউনিয়নের মাদ্রাসার ছাত্র ও শিক্ষক।

একটি মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে