প্রেমিক মুসলিম জানার পর আত্মহত্যা করলেন এক কিশোরী।

0

Our Times News

দিনাজপুরে প্রেমিকাকে আত্মহত্যার প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে রিপন ইসলাম নামে এক যুবককে গ্ৰেফতার করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে ২৬ বছর বয়সী রিপন নামের ওই যুবক নিজের পরিচয় গোপন করে বিপ্লব রায় নামে ছদ্মনাম ব্যবহার করে পার্শ্ববর্তী গ্রামের লতা রায়ের সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। একপর্যায়ে উভয়ই প্রেমের সম্পর্ক থেকে শারীরিক সম্পর্কেও জড়িয়ে পড়ে, একটা সময় যখন লতা ছদ্মনাম ব্যবহারকারী প্রেমিক রিপনকে বিয়ের জন্য চাপ দিতে থাকেন, তখন রিপন তার রূপ পরিবর্তন করে টালবাহানা শুরু করে,

এরপর ১৪ আগস্ট লতা রায় প্রেমিক রিপন কে বিয়ে করার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হয়ে যান, প্রেমিক রিপনের এলাকায় এসে যখন জানতে পারে তার প্রেমিক বিপ্লব রায়ের আসল নাম হচ্ছে রিপন ইসলাম সে এতদিন ছদ্মনাম ব্যবহার করে তার সাথে প্রতারণা করেছে, এরপর লতা রায় ঠিক ঐদিনই বাড়িতে এসে লজ্জায় ক্ষোভে মধ্যরাতে গলায় ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করেন।

এদিকে খানসামা থানা পুলিশ জানিয়েছে তারা ঘটনাস্থল থেকে লতা রায়ের লাশ উদ্ধার করার পর জব্দকৃত আলামত, ও মোবাইল ফোনের মেসেজ ও কথোপকথনের সূত্র ধরেই অনুসন্ধান চালায়। এরই প্রেক্ষিতে গত ৭ সেপ্টেম্বর প্রেমিক রিপন ইসলামকে আটক করা হয়। পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের পর রিপন তার পরিচয় গোপন রেখে প্রেম ও শারীরিক সম্পর্কের কথা স্বীকার করেন।

খানসামা থানার ওসি শেখ কামাল হোসেন আরো জানান, এ ঘটনার পরও রিপন ইসলাম আরো একাধিক নারীর সাথে প্রেম ও শারীরিক সম্পর্কে জড়িয়ে ছিলেন। ওসি শেখ কামাল জানান গ্রেপ্তারের পর রিপন ইসলাম কে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

একটি মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে