চাঁদপুর হাজীগঞ্জের সেই মৃত ইব্রাহিম এসএসসিতে অসাধারণ ফলাফল করেছে।

0

আওয়ার টাইমস নিউজ।

চাঁদপুর হাজীগঞ্জের সেই মৃত ইব্রাহিম খলিল,এইচএসসি
পরিক্ষায় ‘এগ্রেড’ পেয়েছে। তার জিপিএ পয়েন্ট হলো ৪.৪২। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তার বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মজিবুর রহমান।

জানা গিয়েছে, ইব্রাহিম খলিল চাঁদপুরের হাজীগঞ্জের বাকিলা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে চলতি বছর এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়। সে ছিল হাজীগঞ্জ উপজেলার বাকিলা ইউনিয়নের সন্না গ্রামের দিন মজুর সেলিম মিয়ার একমাত্র ছেলে সন্তান। তার পরিবারের সাথে কথা বলে জানা যায়, এইচএসসি পরীক্ষা শেষে তার পারিবারিক সিদ্ধান্তে ইব্রাহিম খলিল কাজ শিখতে গাজীপুরের একটি নির্মাণাধীন প্রতিষ্ঠানে কাজের জন্য রায়। এরপর কাজে যোগ দেওয়ার ঠিক ২০ দিনের মাথায় অনাকাঙ্ক্ষিত ভাবে এক মর্মান্তিক দুর্ঘটনার শিকার হয়ে গত ৪ নভেম্বর না ফিরার দেশে পাড়ি জমায়।

যানা গিয়েছে, ইব্রাহিম খলিল নির্মাণাধীন ওই ভবনে টাইলসের কাজ করার সময় অসাবধানতাবশত ৬ তলা থেকে লিফটের গভীর গর্ত দিয়ে বেজমেন্টের উপর পড়ে যায়। পরে তার সহকর্মীরা তাকে খুঁজতে গিয়ে বেজমেন্টের পানিতে মৃত অবস্থায় পান। ওই রাতেই ইব্রাহিমের মরদেহ বাড়িতে নিয়ে আসেন তার পরিবারের সদস্যরা। ওই রাতেই জানাজা শেষে ইব্রাহিমকে পারিবারিক গোরস্থানে দাফন করা হয়। পরিবারের একমাত্র সন্তান ইব্রাহিমের অকাল মৃত্যুতে তার পরিবারের কান্না এখনো থামেনি। তার মা-বাবা এখনো তার জন্য কাঁদতে কাঁদতে পাগল প্রায়। প্রকাশিত এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল পাওয়ার পর সেই কান্না আরো বেড়ে গিয়েছে।

এদিকে নিহত ইব্রাহিম খলিলের বিষয়ে তার বাকিলা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দেলোয়ার হোসেন জানান, ‘মরহুম ইব্রাহিমের ফলাফলে আমরাও চরমভাবে মর্মাহত ও ব্যথিত। সে ছিল গোবরে পদ্ম ফুলের মতো। এসএসসি পরীক্ষা দেওয়া ইব্রাহিম মাঝে মাঝে তার দিনমজুর বাবার সাথে মাঠে কাজ করত। এলাকাবাসীর কাছে সে ছিল নিতান্ত নিরেট ভদ্র এবং নামাজি ছেলে। তার মৃত্যুতে এলাকাতেও শোকের ছায়া নেমে এসেছিল।

একটি মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে