মায়ের সাথে রাগকরে মাটির নিচে তৈরি করলেন আশ্চর্য একঘর! আছে ওয়াই-ফাই সংযোগও। ( ভিডিওসহ )

0

আওয়ার টাইমস্ নিউজ।
বাবা মার সাথে রাগ করে অনেক ছেলে মেয়েরাই বাড়ি থেকে চলে যান। আবার কেও কেও আবার ফিরেও আসেন। কিন্তু এবার ঘটলো এক অভিনব কান্ড! বাবা মার সাথে রাগ করে ঘর বাড়ি ছেড়ে অন্যত্র চলে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন ১৪ বছর বয়সী এক কিশোর। তবে তিনি এখন একা একা থাকবেন কোথায়? তার তো নিশ্চয়ই বসবাসের জন্য একটা ঘর প্রয়োজন। সেই চিন্তা থেকেই ১৪ বছরের এই কিশোর মাটির নিচে শুরু করেন গর্ত খোঁড়া! টানা ৬ বছর ধরে গর্ত খুঁড়ে মাটির নিচে আস্ত একটা বাড়িই বানিয়ে ফেলেছেন অভিমানী এই কিশোর।

এই বাড়িটিতে রয়েছে শোওয়ার ঘর থেকে শৌচাগার, এমনকি ওয়াই-ফাই সংযোগও রয়েছে সেখানে। এখন অনেকেরই কৌতুল হতে পারে কে এই অভিনব ব্যক্তি? তিনি হলেন স্পেনের বাসিন্দা আন্দ্রেস কান্তো। ২০১৫ সালে তাঁর যখন ১৪ বছর বয়স পোশাক নির্বাচন নিয়ে মা-বাবার সঙ্গে তর্কাতর্কি হয়। সেখান থেকেই তিনি তার বাবা-মার ঘর ছাড়েন।

গত ৬ বছর ধরে এই করেই মাটির তলায় আস্ত বাড়ি বানিয়ে ফেলেছেন আন্দ্রেস। এখন তাঁর বয়স ২০ বছর। মাটির ৩ মিটার গভীরে একটি ছোট থাকার জায়গা তৈরি করেছেন তিনি। সেখানে আলাদা একটি শৌচাগারও রয়েছে। আলোর ব্যবস্থা, মিউজিক সিস্টেম, ওয়াইফাইয়ের ব্যবস্থাও রয়েছে সেখানে।

চলুন এবার দেখে নেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে ভাইরাল হওয়া সেই ভিডিওটি:

একটি মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে