আজ বাংলার ক্রিকেটের কিংবদন্তি মাশরাফির জন্মদিন।

0

নিজস্ব প্রতিবেদক: আমিনুল ইসলাম।

এক নজরে এই কিংবদন্তীর জীবনী…
১৯৮৩ সালের আজকের এই দিনে যশোরের নড়াইলে এই কিংবদন্তী জন্মগ্রহণ করেন। বাংলাদেশ ক্রিকেটকে যে কয়জন সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন তাদের মধ্যে অন্যতম এবং সফল মাশরাফি বিন মুর্তজা।
২০০১ সালের ৮ ই নভেম্বর জিম্বাবুয়ের বিরোদ্ধে টেস্ট দিয়ে ক্রিকেটের যাত্রা শুরু করেন ম্যাশ।
টেস্ট দিয়ে ক্রিকেটে পদাচারনা শুরু হলেও তিনি খুব একটা লম্বা সময় টেস্টে খেলেন নি।
টেস্টে তিনি ৩৬ ম্যাচ খেলে ৭৯৭ রান এবং এবং ৭৮ উইকেট নিয়ে টেস্ট ক্যারিয়ারের অবসর ঘোষণা করেন। টেস্টে একম্যাচে সর্বোচ্চ রান ৭৯, ৫০ এর অধিক রান করেছেন তিনবার। মাশরাফি ক্যারিয়ার শেষ টেস্ট খেলেছেন ৯ ই জুলাই ২০০৯ ওয়েষ্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে।

ওডিআই ক্রিকেটে অভিষেক হয় ২০০১ সালের ২৩ নভেম্বর জিম্বাবুয়ের বিরোদ্ধে। ওডিআই ক্রিকেটে তার ক্যারিয়ার বেশ উজ্জল। সর্বশেষ একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেন চলতি বছরের ৬ ই মার্চ জিম্বাবুয়ের বিরোদ্ধে।

ওডিআই ক্রিকেটে ২২০ ম্যাচ খেলে ১৭৮৭ রান করেন ম্যাশ। সর্বোচ্চ রান ৫১*, বোলিংয়ে বেশ দাপুটে ছিলেন সাবেক এই কাপ্তান, ২২০ ম্যাচে ২৭০ উইকেট রয়েছে তার ঝুলিতে। বোলিং এভারেজ ৩২.৯৩, ৫ উইকেট নিয়েছেন ১ বার।
সেরা বোলিং ফিগার ২৬ রানে ৬ উইকেট। ওডিয়াই ক্রিকেটে ক্যাচ/স্টাম্পিং করেছেন ৬২ বার।

২০ ওভারের সীমিত ক্রিকেটে তিনি একেবারে অল্পসংখ্যক ম্যাচ খেলেছেন সাবেক এই কীর্তিমান।
৫৪ ম্যাচে ৩৭৭ রান,বোলিংয়ে উইকেট রয়েছে ৪২ টি। মাশরাফি ক্যারিয়ারের শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন ২০১৭ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে।

এছাড়াও জাতীয় লিগে বেশ উজ্জ্বল অধিনায়ক ছিলেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। ডিভিশন লিগে খেলেন খুলনা ডিভিশনের হয়ে।
বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ বিপিএলে ২০১২-১৩ মৌসুমে খেলেন ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটরসের জার্সি গায়ে। ২০১৫-১৬ মৌসুমে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস,এবং ২০১৭ হতে বর্তমানে রংপুর রাইডার্সের হয়ে খেলেছেন।

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ আইপিএলে এক মৌসুমে কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে খেলেছেন।

কর্মজীবনে বর্তমানে বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় সংসদ সদস্য (নড়াইল-২) আসনের দায়িত্বে রয়েছেন।
আগামীর দিনগুলো আরোও সুন্দর হোক, সাফল্যমণ্ডিত হোক।

একটি মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে