কঠিন বিপদের সম্মুক্ষিন হতে চলছে দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেট।

0

Our Times News

দক্ষিণ আফ্রিকার স্পোর্টস কনফেডারেশন ও অলিম্পিক বডি সম্মিলিতভাবে দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেট বোর্ডকে সাময়িকভাবে ভাবে স্থগিত করে দিয়েছে। দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেট বোর্ডের নিয়ন্ত্রণ নিচ্ছেন দেশটির সরকার। আর এ কারণেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধও হতে পারে দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেট সংস্থা।

ক্রিকেট বিশ্বের নিয়ন্ত্রক আইসিসির নিয়ম অনুযায়ী, বিশ্বের কোনো দেশের ক্রিকেট বোর্ডে সরকার হস্তক্ষেপ করতে পারবে না। ক্রিকেট বোর্ড থাকবে হবে স্বতন্ত্র। আইসিসির এই নিয়মের ব্যতিক্রম হলেই আইসিসি থেকে নিষিদ্ধ হতে পারে সদস্যভুক্ত ক্রিকেট দলটি।

বিশ্বের অন্যতম ক্রিকেট ভিত্তিক ওয়েবসাইট ক্রিকবাজ জানিয়েছে,যে দক্ষিণ আফ্রিকার স্পোর্টস কনফেডারেশন ও অলিম্পিক কমিটি যৌথভাবে দেশটির ক্রিকেট বোর্ডকে চিঠি দিয়েছেন, চিঠিতে দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেট বোর্ডের শীর্ষ কর্তাদেরকে দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়ানোর জন্য বলা হয়েছে। জানা যায় দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেট বোর্ডের কর্তারা দীর্ঘ সময় ধরে দুর্নীতি করে আসছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। আর এই জন্যই দেশটির ক্রিকেট প্রিয় মানুষ ও ক্রিকেটাররা বোর্ডের ওপর সম্পূর্ণরূপে আস্থা হারিয়ে ফেলেছে বলে জানিয়েছে দেশটির স্পোর্টস ফেডারেশন ও অলিম্পিক কমিটি।

দেশের ক্রিকেট বোর্ডকে দেওয়া চিঠিতে আরো বলা হয়, যে, সাম্প্রতিক সময়ে দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেট বোর্ডের কর্তাদের কাজকর্ম মোটেও ঠিকঠাক হচ্ছে না। তাদের বিভিন্ন অনিয়িম ও দুর্নীতির কারণে দেশের মানুষ ও স্পন্সর এবং অন্যান্য সংগঠনগুলোও বোর্ডের ওপর সম্পূর্ণরূপে বিশ্বাস হারিয়ে ফেলেছে। এজন্যেই বোর্ডের কর্তাদের অব্যাহতি দিয়ে তাদের বিরুদ্ধে আসা দুর্নীতির অভিযোগের তদন্ত করবে স্পোর্টস ফেডারেশন ও অলিম্পিক বডি।

এদিকে দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেট বোর্ডের কর্তারা চিঠি হাতে পেয়েও এখন পর্যন্ত কোনো মন্তব্য করেনি। এবং কেও চিঠির জবাবও দেয়নি।

এর আগে দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেট বর্ণবাদের কারণে ১৯৭০ থেকে ১৯৯১ সালের নভেম্বর পর্যন্ত, প্রায় ২১ বছর নিষিদ্ধ ছিল।

একটি মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে