বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে দল না পেয়ে আত্মহত্যা করলেন এক ক্রিকেটার।

0

স্টাফ রিপোর্টার: হুসাইন আহমেদ।

আসন্ন বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি গোল্ডকাপে কোন টিমে সুযোগ না পাওয়ায় গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন সজীবুল ইসলাম সজীব (২২) নামের বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ জাতীয় ক্রিকেট দলের এক ক্রিকেটার। তিনি বাংলাদেশ জাতীয় টিম অনূর্ধ্ব ১৫, ১৭ ও ১৯ দলের খেলোয়াড় ছিলেন। সজিবুল ইসলাম বাংলাদেশের হয়ে বিদেশের মাটিতেও খেলে এসেছেন। তার বাড়ী রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার ঝালুকা গ্রামে তার বাবার নাম মুরসেদ আলী।
 
সজীবের ভাই আরো জানান সজীব জাতীয় অনূর্ধ্ব-১৯ দলের হয়ে শ্রীলংকা ও ভারতের বিপক্ষে খেলেছেন এবং ভারতের বিপক্ষে এক ম্যাচে দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৯৫ রানের একটি ইনিংসও আছে।
 
এদিকে সাম্প্রতিক সময়ে সজীব বঙ্গবন্ধু টি-২০ কাপে খেলার জন্য কঠোর ভাবে প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। এই টি-টোয়েন্টি কাপে খেলার জন্য সজীব কঠোর অনুশীলন সহ সব রকম পরীক্ষাও দিয়েছিলেন। কিন্তু গত ১৩ নভেম্বর বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড বঙ্গবন্ধু টি-২০ কাপে উত্তীর্ণ হওয়া খেলোয়াড়দের তালিকায় প্রকাশ করেন। সেই তালিকায় সজীবের নাম থাকায় সে কঠিন ভাবে হতাশাগ্রস্থ হয়ে পড়েন। এক পর্যায়ে হতাশাগ্রস্ত থেকেই থেকে সে আত্মহত্যার মত কঠিন পথ পথ বেছে নেন।

সজীবের পরিবার জানিয়েছেন, শনিবার রাতে সে নিজ ঘরে গলায় ফাঁস দিয়েআত্মহত্যা করেন।
পরে রবিবার সকালে তার পরিবারের সদস্যরা সজীবকে ডাকতে থাকেন, ভিতর থেকে তার কোন শব্দ না পাওয়ায় এক পর্যায়ে দরজা ভেঙে ভিতরে প্রবেশ করলে ঝুলন্ত অবস্থায় সজীবের মরদেহ দেখতে পায়।

এরপর দুর্গাপুর থানার ওসি খুরশিদা বানু এসে মরদেহ পর্যবেক্ষণ করেন, এই আত্মহত্যার বিষয়ে পরিবারের কোনো অভিযোগ না থাকায় ওসি খুরশিদা বানু লাশ দাফনের অনুমতি দিয়ে দেন।
 

একটি মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে