বাংলার কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান আশরাফুল রাজশাহীর অধিনায়ক কেন নয়?

0

Our Times News

মোহাম্মদ আশরাফুল! যিনি এক সময় বাংলার ক্রিকেটের আশার ফুল ছিলেন যার দিকে তাকিয়ে থাকত পুরো বাংলাদেশ। যার ব্যাট হাসলে হাসতো পুরো বাংলাদেশ।
তিনি সাকিব,তামিম মাশরাফিদের মতো এককালের বাংলার ক্রিকেটের বড় পোস্টার বয় ও কিংবদন্তী ব্যাটসম্যান ছিলেন।

কিন্তু ভাগ্য আর নিয়তির নির্মম পরিহাস তিনি কালের আবর্তে নিজেকে যেন হারিয়ে ফেলেছেন কোনো এক অজানা রাজ্যে। তবুও হারিয়ে নিজেকে আবার ঠাই দিতে চেয়েছেন বাংলাদেশের জাতীয় দলে।

কিন্তু বিসিবির অবহেলা আর নানা অজুহাতে সবশেষে জাতীয় দলের জার্সি এখনো গায়ে জড়াতে পারেনি মোহাম্মদ আশরাফুল। বঙ্গবন্ধু বিপিএলে আশার আলো জ্বলানোর স্বপ্ন থাকলেও দীর্ঘায়ু হয়নি সেবারেও। কেননা তার জায়গায় সুযোগ দেওয়া হয়েছে অন্যন্য দেশীয় নতুন -পুরাতন খেলোয়াড়দের।

আশরাফুল নামক সেই বিধ্বংসী ব্যাটসম্যানের ক্যারিয়ার ছিলো স্বপ্নের মতো রঙিন। হটাৎ অজানা ঝড়ে সবকিছু যেন বিলীন হয়ে গেছে।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে মোহাম্মদ আশরাফুলের অভিষেক হয় ৬ ই সেপ্টেম্বর ২০০১ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেষ্ট সিরিজ দিয়ে। সর্বশেষ টেষ্ট ম্যাচ খেলেছিলেন ২৫ ই এপ্রিল ২০১৩ সালে জিম্বাবুয়ের বিরোদ্ধে। টেস্টে মোহাম্মদ আশরাফুল ৬১ ম্যাচ খেলে ২৪.০০ গড়ে ২৭৩৭ রান করেছেন। চলমান ক্যারিয়ারে রয়েছে ৫টি শতক ও ৮টি অর্ধশতক।

একদিনের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে বেশ উজ্জ্বল আশরাফুলের নৈপুণ্য, ১১ই এপ্রিল ২০০১ সালে একদিনের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের পদচারণা শুরু হয় জিম্বাবুয়ের বিরোদ্ধে।
সর্বশেষ ওডিআই ম্যাচ খেলেছিলেন ২০১৩ সালের ৮ই মে জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে। ওডিআইয়ে ১৭৭ ম্যাচে ৩৪৭৮ রান এবং ২২.২৩ গড়ে সাজানো তার ক্যারিয়ার।

বাংলাদেশ জাতীয় দলের দীর্ঘদিন দায়িত্বপ্রাপ্ত সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুল। টেস্টে ১৭ ম্যাচে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনি। ওডিআই ও টি-টোয়েন্টিতে অধিনায়কত্ব করেছেন যথাক্রমে ৫২ ও ১৪ ম্যাচে। বাংলাদেশ জাতীয় দলের সর্ব কনিষ্ঠ সেঞ্চুরিয়ান মোহাম্মদ আশরাফুল।

এছাড়াও ঘরোয়া লিগেও আশরাফুলের অবদান অনস্বীকার্য, মৌসুমে খেলেছেন ঢাকা গ্ল্যাডিয়টর্সের জার্সি গায়ে। এক মৌসুমে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের জার্সি গায়ে ডাক পেয়েছিলেন।

বর্তমানে জাতীয় দলে ফিরতে মরিয়া চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন এই কিংবদন্তী ক্রিকেটার মোহাম্মদ আশরাফুল। সম্প্রতি বিসিবির একান্ত উদ্যোগে ২৫ ই নভেম্বর থেকে শুরু হতে যাওয়া বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি টুর্ণামেন্টে মিনিস্টার গ্রুপ অফ রাজশাহীর হয়ে খেলার জন্য মনোনীত হয়েছেন তিনি।

যোগ্যতার বিচারে মিনিস্টার গ্রুপ অফ রাজশাহী দলের ক্যাপ্টেন্সি পাওয়ার যোগ্য ব্যক্তি ছিলেন জাতীয় বাংলাদেশ ক্রিকেট দল সাবেক অধিনায়ক ও কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ আশরাফুল।

লেখক বিশিষ্ট ক্রীড়া প্রতিবেদক: আমিনুল ইসলাম )

একটি মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে