শান্ত’র ফিফটি,সেঞ্চুরি থেকে ১০ রান দূরে থাকতে ফিরলেন তামিম।

0

আওয়ার টাইমস্ নিউজ।
শ্রীলঙ্কার পাল্লেকেলে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথম টেস্টে টসে জিতে ব্যাটিংয়ে সফরকারী বাংলাদেশ। শুরুতেই ওপেনার সাইফ হাসানের উইকেট নিয়ে চালকের আসনে চলে যায় স্বাগতিক শ্রীলঙ্কা। দ্বিতীয় উইকেটে এসে ধাক্কার সামাল দেয় নাজমুল হোসেন ও তামিম ইকবাল।গড়েন ১৪৪ রানের অনবদ্য পার্টনারশিপ।

শুরুতেই দলের চাপ সামাল দিতে ওয়ানডে স্টাইলে ব্যাট করেন তামিম। ক্যারিয়ারের দশম ফিফটি থেকে ১০ রান দূরে থাকতেই বিশুয়া ফার্নান্দুর বলে স্লিপে ক্যাচ তুলে সাজঘরে ফেরেন তামিম। দীর্ঘ সমালোচনার জবাব দিয়ে টেস্ট ম্যাচে অবশেষে রানে ফিরেছেন শান্ত। ধীর গতির ইংনিস খেলে তুলে নিয়েছেন ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় অর্ধ শতক।

সমালোচনার বাঁধ ভেঙ্গেছেন শান্ত। সবশেষ চার টেস্টে শান্ত’র ঝুলিতে রয়েছে ৪০ রান। উইন্ডিজের বিপক্ষে ঘরের মাঠে সর্বশেষ চার ম্যাচে সুযোগ পেয়েছিলেন শান্ত।

টেস্ট ছাড়াও অন্যন্য ফরম্যাটে শান্ত’র ব্যাটিং ছিলো প্রশ্নবিদ্ধ। সদ্য শেষ হওয়া নিউজিল্যান্ডের মাটিতেও শান্ত’র কাছ থেকে আশানুরূপ ফল পায়নি দল। তবে এবার সমালোচনার জিবাব দিয়ে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রতিভার স্বাক্ষর রেখে চলেছেন শান্ত।

দলের প্রথম উইকেটে বিশুয়ার বলে এলবিডব্লিউর ফাঁদে পা দেন ওপেনার সাইফ হাসান। বিশুয়ার অফসাইড পিচিংয়ে করা বলে পুশ করে খেলতে গিয়ে এলবির ফাঁদে পড়েন সাইফ। জোড়ালো আবেদন হলেও আম্পায়ার নাকচ করে দেন। চরম দ্বিধার মধ্যে থেকেও রিভিউ নেন লঙ্কান অধিনায়ক করুনারত্নে। এবং সফল হন।

দ্বিতীয় উইকেটে এসে শান্ত-তামিমের ব্যাটিংয়ে আশার আলো দেখছিলো সফরকারীরা৷ তামিমের ওয়ানডে স্টাইলের ব্যাটিং আর শান্ত’র ধীর গতির স্ট্রাইক পরিবর্তনে দ্বিতীয় জুটি থেকে স্কোর বোর্ডে আসে ১৫২ রান।

প্রতিবেদন লিখার পূর্ব পর্যন্ত বাংলাদেশ দলের সংগ্রহ,
১৯৮/২ (৫১)
নাজমুল হোসেন শান্তঃ ৭৭*
মুমিনুল হকঃ ২০*

একটি মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে