শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচের সুপার ওভারে বেঙ্গালুরুরের জয়!

0

স্টাফ রিপোর্টার: আমিনুল ইসলাম।

ক্ষনে ক্ষনে রং পাল্টানোর আরেক নাম ক্রিকেট। ক্রিকেট প্রেমীদের জন্য এ যে আরেক বসন্ত। আজকের ম্যাচের দিকে তাকালেই তো সব হিসেব নিকেশ যেন মিলে যাবে।

আইপিএল ২০২০ আসরের ১০ ম্যাচটা যেন ইতিহাস হয়ে থাকবে। কেনই বা থাকবে না ম্যাচটা যে কখন বেঙ্গালুরু ছিনিয়ে নিয়ে গেল তা বলা বাহুল্য।
টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় মুম্বাই, টসে হারার ফলশ্রুতিতে প্রথমে ব্যাট করতে নামে বেঙ্গালুরু।

নির্দিষ্ট ২০ ওভার শেষে ৩ উইকেট হারিয়ে ২০১ রান স্কোরবোর্ডে তুলতে সক্ষম হয় বিরাট কোহলির দল। এয়ারন ফিঞ্চ, দেবদূত পাদ্দিকাল,ও ডি ভিলিয়ার্সের ফিফটির সাহায্যে ২০২ রানের লক্ষ্যমাত্রা ছুড়ে দেয় বেঙ্গালুরু।

২০২ রানের বিশাল লক্ষ্যমাত্রা তাড়া করতে গিয়ে জয়ের দ্বারপ্রান্তে এসে স্কোর পৌছায় সমতায়।
ফলে সমাধানের জন্য বেছে নিতে হয় সুপার ওভার পদ্ধতি। অবশ্য ম্যাচটা প্রায় বেড় করে এনেছিলেন মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান ইষান কিষান। ৯৯ রান করে ম্যাচের শেষ ওভারে সাজঘরে ফিরতে হয় তাকে।

শেষ ওভারে দলের জয়ের জন্য মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের প্রয়োজন হয় ১৯ রান। প্রথম দুই বলে দুই সিঙ্গেল আসে এবং তৃতীয় বলে ছক্কা হাকান ইষান কিষান।
চতুর্থ বল লোয়ার ফুল-টস ডেলিভারিতে আবারো ছক্কা হাঁকান ইষান কিষান। তখনো দলের জয়ের জন্য প্রয়োজন ২ বলে ৫ রান।
ইসুরু উদানার করা ৫ম বলে হাটু গেড়ে স্লক সোয়িপ করতে গিয়ে আউটসাইডে ফিল্ডারের হাতে ক্যাচ তুলে ৯৯ রান করে ফেরত যান ইষান কিষান। শেষ বলে ৫ রানের লক্ষ্যে স্ট্রাইকিং প্রান্তে যান পোলার্ড এবং শেষ বলে চার মেরে দলকে নিয়ে আসেন সমতায়।

ম্যাচ ফলাফলের জন্য খেলা গড়ায় সুপার ওভারে।
সুপার ওভারে খুব একটা সুবিধা করতে পারেনি মুম্বাই, ৬ বলে ১ উইকেটে ৮ রান করতে সক্ষম হয় পোলার্ডের মুম্বাই।
৯ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে কিছুটা আশা জাগিয়েছিলেন জসপ্রিত বুমরাহ। প্রথম দুই বল থেকে আসে দুই রান, তৃতীয় বলে বাউন্সার ঠেকাতে গিয়ে আউটের আবেদন হলে আম্পায়ার সিদ্ধান্ত দেয় আউট! কিন্তু রিভিউ নিয়ে সেবারের মতো রক্ষা পেলেন ডি ভিলিয়ার্স। চতুর্থ বলে আসে ৪ রান। তখনও বেঙ্গালুরুর জয়ের জন্য প্রয়োজন ২ বলে ২ রান। ৫ম বল থেকে ১ রান নিয়ে স্ট্রাইক পরিবর্তন করেন ডি ভিলিয়ার্স।

শেষ বলে বাউন্ডারি দিয়ে দলের জয় নিশ্চিত করে বিরাট কোহলি।

সংক্ষিপ্ত স্কোর ;
টসঃ মুম্বাই ইন্ডিয়ানস (ফিল্ডিং)

বেঙ্গালুরুঃ ২০১/৩(২০)

পাদ্দিকালঃ ৫৪(৪০)
ডি ভিলিয়ার্সঃ ৫৫(২৪)
এয়ারন ফিঞ্চঃ ৫২(৩৫)

ট্রেন্ট বোল্টঃ ৪-৩৪-০-২
রাহুল চাহারঃ ৪-৩১-০-১

মুম্বাই ইন্ডিয়ানসঃ ২০১/৫(২০)
ইষান কিষানঃ ৯৯(৫৮)
কেইরন পোলার্ডঃ ৬০(২৪)
হার্দিক পান্ডিয়াঃ ১৫(১৩)

ইসুরু উদানাঃ ৪-৪৫-০-২
ওয়াশিংটন সুন্দরঃ ৪-১২-০-১

সুপার ওভারঃ
মুম্বাই ইন্ডিয়ানসঃ ৮/১(১)
বেঙ্গালুরুঃ ১১/০(১)
ফলাফলঃ সুপার ওভারে বেঙ্গালুরু জয়ী।

একটি মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে